স্কলার্সহোম মেজরটিলা কলেজে তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠান সম্পন্ন


Shikha BD প্রকাশের সময় : মে ১৬, ২০২৪, ৭:৪২ পূর্বাহ্ন /
স্কলার্সহোম মেজরটিলা কলেজে তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠান সম্পন্ন

স্কলার্সহোম মেজরটিলা কলেজের অধ্যক্ষ মো. ফয়জুল হক বলেছেন, কো-কারিকুলার এক্টিভিটিজ বুদ্ধিবৃত্তিক চিন্তার বিকাশ ঘটায়, নেতৃত্ব গুণ তৈরি এবং আধুনিক বিশ্বের যুগোপযোগী মানবিক মানুষ তৈরি করে।

তিনি আরো বলেন, মনন চর্চার অপরিহার্য অংশ সহপাঠ্য কার্যক্রম; এতে মেধার পরিপূর্ণ বিকাশ ঘটে এবং সুনাগরিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলার পথ মসৃণ হয়। স্কলার্সহোমের মূল লক্ষ্য তাঁর প্রতিটি সদস্য নিজেকে গড়ার মাধ্যমে দেশ ও বহির্বিশ্বে মার্জিত সংস্কৃতবান ও আদর্শ মানুষ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করবে। আর এ ক্ষেত্রে বিতর্ক, আবৃত্তি, রচনা লিখা ও বক্তব্য প্রতিযোগিতা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

তিনি বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সকালে স্কলার্সহোম মেজরটিলা কলেজের তিন দিনব্যাপী বাংলা বিতর্ক, আবৃত্তি ও নির্ধারিত বিষয়ে রচনা লিখা ও বক্তব্য প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান সমন্বয়ক ছিলেন বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রভাষক মীর হোসাইন সরকার। বিচারক প্যানেল, ইনস্ট্রাক্টর ও পর্যালোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রভাষক শাহাব উদ্দিন আহমেদ, প্রভাষক এমদাদুর রহমান, প্রভাষক সাইফুর রহমান, প্রভাষক তোফায়েল আহমেদ শিহাব, প্রভাষক নিয়ামুল ইসলাম, প্রভাষক আব্দুল্লাহ আল মামুন ও প্রভাষক নুরুজ্জামান ইমন।

তিনদিনব্যাপী এই আয়োজনে কবিতা আবৃত্তি, নির্ধারিত বিষয়ে বক্তৃতা, রচনা লেখা ও বিতর্ক প্রতিযোগিতায় জুনিয়র, ইন্টারমিডিয়েট ও সিনিয়র গ্রুপে প্রায় শতাধিক প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে। এতে সকলের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে কলেজে উৎসবমুখর পরিবেশ তৈরি হয়।

অনুষ্ঠানের সমাপনী অনুষ্ঠানে স্কলার্সহোম মেজরটিলা কলেজর অধ্যক্ষ মো. মো. ফয়জুল হক বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন এবং তাদের শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন। পরে অধ্যক্ষ মহোদয় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের সাথে গ্রুপ ভিত্তিক ফটোসেশন করেন এবং সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।